সিদ্ধার্থের এর মৃত্যুর পর মুখে হাসি কেন? ট্রোলের কড়া জবাব পাঞ্জাবের ক্যাটরিনা কাইফ!

সিনেবাংলা ডেস্ক: রুপা তালুকদার: সিডনাজ (sidnaaz)নামটি বোধহয় আমাদের কারোর অজানা নয়। বিগ বসের ঘর থেকেই শেহেনাজ গিল(shennaz gill) ও সিদ্ধার্থশুক্লা(Sidharth Shukla )এই দুজনের নাম জুড়েই তৈরি হয়েছিল সিডনাজ নামের পরিচিতি। সিডনাজ নামটি চুরমার করে দিয়ে এতো আলোর মধ্যে এক রাশ অন্ধকার নিয়ে চলে গেলেন সিদ্ধার্থ শুক্লা।

নিষ্পাপ প্রাণ উজ্বল মেয়েটি এক নিমিষে যেন চুপচাপ হয়ে গেল। নিজের ক্ষততে নিজেই মলম লাগিয়ে ধীরে ধীরে নেট পাড়ায় তার হাসি মুখের দেখা মিলল। মাস কয়েক আগে নিজের ম্যানেজারের এঙ্গেজমেন্ট পার্টিতে তাকে আনন্দে মেতে উঠতে দেখা দিয়েছিল আর এর দরুন তাকে নিয়ে শুরু হয়ে যায় ট্রোলড। প্রশ্ন ওঠে “সিদ্ধার্থের মৃত্যুর পর কি করে এত হাসিখুশি থাকছেন তিনি “এই নিয়ে শুরু হয়েছে জল ঘোলা।

শেহেনাজ শিল্পা শেট্টির চ্যাট শো কে  গিয়েছিলেন সেখানে  ট্রোলের উত্তর দেন তিনি ।শিল্পা  শেট্টি সেখানে  প্রশ্ন করেন “তাকে নিয়ে ট্রোল করা হচ্ছে কারন সে হাসিখুশি থাকছে”। শেহনাজ উত্তরে বলেন”‘সিদ্ধার্থ সবসময় চাইত আমি খুশি থাকি৷’ তিনি আরও বলেন, “আমি যদি হাসার সুযোগ পাই, তাহলে হাসব। যদি নাচ করার সুযোগ পাই, তাহলে নাচ করব। আমার যদি মনে হয় এখন দিওয়ালি তাহলে এখন আমি দিওয়ালি পালন করব, হাসিখুশি থাকাটা খুবই দরকার । তাই আমি সেটার চেষ্টাই করে যাব। আপনি যেহেতু প্রশ্ন করলেন এই ব্যাপার নিয়ে কথা বলছি  নয়তো আমি এটা নিয়ে কখনও কথা বলতাম না, তা সে যেটাই ভাবুক না কেন!’

শেহেনাজ আরো বলেন” আমার আর সিদ্ধার্থের সম্পর্ক কেমন ছিল সেটা জনে জনে কেনো বলব। আমার মনে হয় না গোটা পৃথিবীকে এটা জানানোর দরকার আছে। আমি জানি ও আমার জীবনে কী ছিল, আমি ওর জীবনে কী ছিলাম। তাই আমার মনে হয় না এই ব্যাপার তা নিয়ে কোনো ব্যাখ্যা দেওয়ার প্রয়োজন আছে কি না”
তিনি আরো বলেন”সিদ্ধার্থ আমাকে কখনো বলিনি তুই হাসিস না বা তুই কাজ করিস না, বরং সিদ্ধার্থ এটা চাইত আমি সবসময় হাসিখুশি থাকি কাজ করি তাই আমি হাসিখুশি থাকবো কাজ করবো জীবনে অনেক দূর এগিয়ে যাবে কথাগুলো শুনি শিল্পা শেহনাজ কে জড়িয়ে ধরল।”

https://www.instagram.com/tv/CbiMEv4qNw6/?utm_medium=copy_link

Leave a Comment