Sohom chakraborty :মহানায়ক সন্মান পাওয়া নিয়ে বিতর্ক! এ নিয়ে কি বললেন অভিনেতা সোহম চক্রবর্তী

সিনে বাংলা ওয়েব ডেস্ক: টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা সোহম চক্রবর্তী ১৯৮৮ সালে বাংলা ছবি ছোট বউ ছবিতে শিশুশিল্পী হিসেবে অভিনয় করেন। তখন তার ৩ বছর বয়স ছিল।পরবর্তিতে তার প্রথম মুখ্য ভূমিকায় ছবি চাঁদের বাড়ি।তার পরের ছবি বাজিমাৎ বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে। পরবর্তিতে তিনি বলেন যা তিনি কখনই আশা করেননি যা তিনি আবারো উঠে দাঁড়াতে পারবেন, তার বাজিমাত-এর ফ্লপ হওয়ার পরে। কিন্তু তার অভিনীত পরের ছবি প্রেম আমার(২০০৯) মারাত্মক বাণিজ্যিক সাফল্য লাভ করে। পরবর্তীতে রাজ চক্রবর্তী পরিচালিত বোঝেনা সে বোঝেনা চলচ্চিত্রে তিনি চমৎকার অভিনয় করেন। তিনি বাংলা চলচ্চিত্রের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র।

চিত্র: সোহম চক্রবর্তী

চিত্র: সোহম চক্রবর্তী

দেশের সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিবেশ উত্তাল ধর্ম-সংক্রান্ত নানা ইস্যুতে। ধর্মীয় বিভেদ নিয়েই রাজ চক্রবর্তীর পরবর্তী ছবি ‘ধর্মযুদ্ধ’, যেখানে মুখ্য ভূমিকায় রয়েছেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়, ঋত্বিক চক্রবর্তী, সোহম, পার্নো মিত্র, সপ্তর্ষি মৌলিক, স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত। ছবির পোস্টার ও টিজার নিয়ে তো দর্শকের মধ্যে আগ্রহ তৈরি হয়েছিল আগেই, ট্রেলার মুক্তি পেতে দ্বিগুণ হল ছবি নিয়ে দর্শকের উৎসাহ।

চিত্র: সোহম চক্রবর্তী

রাজ চক্রবর্তীর পরিচালিত ‘ধমযুদ্ধ’ সিনেমাতে সোহম চক্রবর্তী জবর নামে চরিত্রে অভিনয় করেছেন। ছবির পাঁচটি চরিত্র জবর,রাঘব,শবনম,আম্মি ও মুন্নি।এই ছবিতে হিন্দু-মুসলিম দ্বন্দ্বের বিষয়টি যে থাকবে তা পোস্টার ও টিজার থেকেই বোঝা গিয়েছিল। ট্রেলারে তা আরও স্পষ্ট হল। রাজ চক্রবর্তীর বহু ছবিই সমসাময়িক সমাজ ও রাজনৈতিক বিষয়ভিত্তিক। সেই তালিকায় সংযোজন হতে চলেছে ‘ধর্মযুদ্ধ’।

চিত্র: সোহম চক্রবর্তী

আবার সোহম চক্রবর্তী (Soham chakraborty)বেশ কিছু দিন আগেই ‘মহানায়ক’ উপাধি পান পশ্চিমবঙ্গ(west Bengal )বর্তমান সরকারের কাছে। তিনি এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন যে তার অভিনেতা হওয়ার পথ একদমই সহজ ছিল না কারণ ইন্ড্রাসট্রিতে( industry ) তার কোনো ‘গড ফাদার'( God father)ছিলনা। তিনি আজ যেই জায়গায় দাঁড়িয়ে আছেন তা নিজের দক্ষতায়। তবে ওনাকে নিয়ে ‘মহানায়ক ‘ সন্মানের বিতর্ক সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন যে যারা ওনার বিরোধীতা করছেন তাদেরকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও সহানুভূতি। এবং তিনি জানিয়েছেন যে ‘মহানায়ক’ সন্মান মুখ্যমন্ত্রী( chief minister)মমতা ব্যানার্জি(mamta banarjee) হাত থেকে পেয়ে তিনি খুব খুশি ও আপ্লুত। তাকে এই অনুপ্রেরণা আরও সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

চিত্র: সোহম চক্রবর্তী

Leave a Comment