Partha- Arpita: এবার অপাকে নিয়ে মুখ খুললেন দেব, রুক্মিণী, মনামী সহ পুরো টলি পাড়া!

সিনে বাংলা ডেস্ক: অর্থই যে অনর্থের মূল তা আরও একবার প্রমাণিত হয়ে গিয়েছে। বর্তমানে এসএসসি(SSC) এর নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় উঠে এসেছে পার্থ চট্টোপাধ্যায়(Partha Chatterjee)- র নাম । আর অর্পিতা মুখোপাধ্যায়(Arpita Mukherjee)-র ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে কোটি কোটি টাকা। এখন জনসাধারণের আলোচনার শীর্ষে। সেই খবরই এখন শীর্ষে। এ নিয়ে কি বললেন টলি পাড়ার তারকারা। জানুন কোন তারকা কি বললেন।

অভিনেত্রী রুক্মিণী মৈত্র(Rukimini Maitra)-কে এ ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হয় হিরোইন(heroine) হিসেবে তিনি  কত  টাকা সঞ্চয় করেছেন? তিনি হাসতে হাসতে জানান তিনি কোনদিনই বেশি টাকা সঞ্চয় করতে পারেন না। কোটি টাকা  জমানো তো তাঁর কাছে সম্ভব নয় । কারণ টাকা জমলে তিনি তা দিয়ে মনের মত খাবার কিনেন। তিনি জানান তাঁর খাবারের  বিল দেখলে সকলের চক্ষু চড়ক গাছ হয়ে যাবে। তাই তাঁর বাড়ি কেউ তল্লাশি করলে এলে শুধু খাবারের বিল পাবে টাকা নয়। ছোটপর্দার অভিনেত্রী ইন্দ্রানী হালদার(Indrani Halder) জানান তিনি এত বছর ইন্ডাস্ট্রি(industry)-তে কাজ  সেইরকম অর্থ হয়তো উপার্জন করতে পারেন নি, তবে মানুষের ভালবাসা অর্জন করেছেন। তাই তাঁর বাড়িতে কেউ তল্লাশি করতে এলে শুধু  ভালোবাসা পাবেন কোনো  টাকা পয়সা পাবেন না। অভিনেত্রী মনামী ঘোষ(Monami Ghosh) জানিয়েছেন তিনি এতো টাকা কোনো দিন চোখে দেখেন নি। তবে ভূতের রাজা যদি তাকে বর হিসেবে এতো টাকা দেন তাহলে তিনি এতো টাকা দিয়ে কি করবেন তা ঠিক করে উঠতে পারবেন না।

রোহন ভট্টাচার্য্য(Rohan Bhattacharya) মজা করে বলেছেন তিনি যতই টাকা উপার্জন করেন না কেন তাঁর বাড়িতে হানা দিলে এতো টাকা পাবে না। তাঁর খরচার হাত, তাঁর কাছে এতো টাকা থাকলে তিনি জমিয়ে রাখতে পারতেন না, তারপরেই জানান মজা করে বলেছেন তিনি। ছোটোপর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা অভিষেক বসু(Avishek Basu) হাসতে হাসতে বলেছেন এতো টাকা তাঁর থাকলে তিনি একজন অভিজ্ঞ চার্টার অ্যাকাউন্ট্যান্ট(accountant) নিয়োগ করতেন। কারণ তিনি লাখের হিসাব জানেন কোটির হিসাব জানেন না। তবে এছাড়াও সেলিব্রেটি(celebrity) রা অনেক উপদেশ দিয়েছেন। সুপারস্টার(Superstar) দেব(Dev) বলেছেন কেউ যদি আয়করে ফাঁকি দিলে  তাঁকে হাজতবাস করতে তো হবেই । সুতরাং আয়কর ঠিক মতো মেটানো উচিত।অর্পিতা মুখোপাধ্যা(Arpita Mukherjee)-এর উদ্দেশ্য  অপরাজিতা আঢ্য(Aprajita Adhya) বলেছেন অসৎ পথে টাকা উপার্জন করার  আগে প্রত্যেকেই তাদের নিজেদের পরিবার ও বাবা-মার কথা ভাবা উচিত। তবে এখন সকলেরই নজর ন্যায় ব্যবস্থার উপর। দেখা যাক দোষীরা শাস্তি পায় কিনা।


Leave a Comment