ছোটবেলার রথযাত্রা উদযাপন নিয়ে কি বললেন তারকারা?

সিনেবাংলা ডেক্স: রথযাত্রাকে ঘিরে গড়ে ওঠে ছোটদের উৎসব । নানা ভাবে সুন্দর করে রথ সাজিয়ে পাড়ায় পাড়ায় দড়ি ধরে টেনে বেড়ানো। বড়োদের সাথে মেলায় গিয়ে জিলিপি, পাপড় ভাজা খাওয়া ইত্যাদি। তারকারাও কি ছোটবেলায় এমন ভাবেই রথযাত্রা পালন করতেন? একটি সংবাদ মাধ্যমের দ্বারা নানা তারকাদের সাক্ষাৎকারে জানা গেছে তাদের ছেলেবেলার রথযাত্রার গল্প।

স্টার জলসার আলতা ফড়িং ধারাবাহিক অভিনয় রত তুলিকা বোস (Tulika Bose) তার ছেলেবেলায় কাটানো রথযাত্রা নিয়ে জানান, “আর পাঁচটা বাচ্চার মতোই আমরা রথ কেনার জন্য বায়না করতাম বাবার কাছে, তিন থাকের একটি রথ কিনে সেখানে জগন্নাথ, বলরাম, সুভদ্রা ঠাকুর রেখে ফলের টুকরো, গুজিয়া, ধূপ দিয়ে দড়ি ধরে টানতাম বন্ধুরা মিলে। বাবা – কাকা – দাদারা সেখানে টাকা দিতেন। সেই টাকা দিয়ে পিকনিক হতো এছাড়াও বাবা নিয়ে যেতেন রথের মেলায়।”

অভিনেতা রাহুল মজুমদার (Rahul Majumder) তার ছেলেবেলায় কাটানো রথযাত্রার মূহুর্ত নিয়ে বলেন, “রথের আগের দিন স্কুল থেকে ফিরে সন্ধ্যেবেলা আমি এবং আমার বোন খুব উৎসাহিত থাকতাম কারণ রথ সাজাতে হবে। নারকেল দানা মিষ্টি দিয়ে, মার্বেল পেপার, ফেবিকল নিয়ে মারাত্মক একটা ব্যাপার হতো, শেষে মাকে বা বাবাকে এসেই সাজিয়ে দিতে হতো। সবথেকে বেশি যা গুরুত্বপূর্ণ, প্রসাদ দিয়ে প্রণামী নেওয়াটা। সেই টাকায় চকলেট কিনতাম। তবে এখন আর সময় পাই না। রথের দিন শ্যুটিংও থাকে। তবে সেখানেই জিলিপি, পাপড় ভাজা আনিয়ে খাওয়া হয়। কিন্তু এখন বাচ্চাদের উৎসাহটা কম এইসব ব্যাপারে।”

নবনীতা দাস (Nabanita Das) জানান, “আমার কাছে রথযাত্রা মানে ওই দড়ি ধরে টানা আর ছোট্ট একটা কুটুরি রাখা সবার বাড়ি বাড়ি যাওয়ায় রথের দড়ি ধরে টেনে যেখানে সবাই একটা দুটাকা, পঞ্চাশ পয়সা দিত। নানা হাতের কাজ করার দারুণ একটা জায়গা ছিল রথ সাজানোর জন্য। রথ সাজিয়ে সন্ধ্যাবেলা একটা ঘন্টা নিয়ে টুং টুং করে বেড়িয়ে পড়তাম। এগুলোই মনে পড়ে রথযাত্রা নিয়ে।”

বড়োরা ব্যস্ততার মধ্যে রথযাত্রা সেই ভাবে উদযাপন করতে না পারলেও ছোটরা কিভাবে তা উদযাপন করেন জানালেন, টলিউডের খুদে দুই সদস্য সৌম্যদীপ্ত সাহা (Soumyadipta Saha) ও উদিতা মুনসি (Udita Munshi)। সৌমদীপ্ত জানায়, তার বাড়িতে সবরকম উৎসবই উদযাপন করা হয়। রথযাত্রার দিনও তেমন রথ নিয়ে সারা পাড়া গোল করে ঘোরা হয়। উদিতা আবার নিজে রথ সাজানোর সময় পান না তবে তার দাদা পুরো রথটাকে সাজিয়ে দেওয়ার পর সকলকে নিজে হাতে প্রসাদ দেন তিনি, সেটা যেমন সোজা রথ তেমন উল্টো রথেও।

Leave a Comment